সাধারন জিজ্ঞাসা

জেনারেশন আনলিমিটেড – একটি গতিশীল অংশীদারিত্ব যা তরুণদের দক্ষতা, সরকার, বহুপাক্ষিক সংস্থার প্রতিনিধি, বেসরকারি খাত এবং সুশীল সমাজকে শিক্ষা, দক্ষতা প্রশিক্ষণ, এবং দ্রুত বর্ধমান বৈশ্বিক জনসংখ্যার তরুণদের (১৫-২৪) দল- যা ২০৩০ সালের মধ্যে ২ বিলিয়নে পৌঁছাবে, ক্ষমতায়নে জরুরি বিনিয়োগে অনুপ্রাণিত করে।
জেনারেশন আনলিমিটেড ইমেজেন ভেঞ্চারস ইয়ুথ চ্যালেঞ্জ বুট ক্যাম্প- যা এই বছর বিশ্বব্যাপী ৪০+ দেশে অনুষ্ঠিত হবে. প্রথমবারের মত বাংলাদেশে তরুণদের কাছ থেকে জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবের উপর সমাধান প্রকল্প তৈরি করার জন্য আহ্বাবান করা হচ্ছে। সফল আবেদনকারীদের একটি পরিকল্পনা কর্মশালায় অংশ নিতে আমন্ত্রণ জানানো হবে। কর্মশালার পর সবচেয়ে প্রতিশ্রুতিশীল প্রকল্প বাছাই করা হবে এবং $১০০০ পর্যন্ত ফান্ড প্রদান করা হবে এবং পরামর্শ ও বাস্তবায়ন সহায়তা প্রদান করা হবে।

তরুণরা যারা…

১. বয়স ১৫ – ২৪ (১লা অগাস্ট ২০২২ )

2. জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবের উপর সমাধান প্রকল্পে কাজ করতে আগ্রহী।

3. এই বিশেষ চ্যালেঞ্জের জন্য তরুণরা আবেদন করতে পারবে না যদি:

ক. তারা ইতিমধ্যে প্রকল্পটি বিকাশের জন্য ফান্ড পেয়েছে
খ. তারা ইতিমধ্যেই একটি নিবন্ধিত কোম্পানি বা সম্প্রদায় সংস্থা

৪. অংশগ্রহণ করতে পারবে:

ক. বুটক্যাম্প
খ. স্থানীয় সীড ফান্ড এবং পরামর্শের জন্য নির্বাচিত হলে, প্রকল্প বাস্তবায়নে যেতে পারে, যা অন্তত ডিসেম্বর ২০২২ পর্যন্ত স্থায়ী হতে পারে

৫. দলের সদস্যদের মধ্যে কমপক্ষে ১ জনের ব্যাংক একাউন্ট থাকতে হবে
৬. আমরা বৈচিত্র্যকে স্বাগত জানাই! আমরা লিঙ্গ সমতা এবং বৈচিত্র্য অন্তর্ভুক্ত দলগুলিকে স্বাগত জানাই – লিঙ্গ, যৌনতা, জাতিগততা, অক্ষমতা

যুব চ্যালেঞ্জ বুট ক্যাম্পের সময়কাল ৩ দিন। এটি একটি অনাবাসিক প্রোগ্রাম। যাতায়াত ভাড়া এবং খাবার প্রদান করা হবে।
বুট ক্যাম্পের সম্ভাব্য সময়সূচী হল সেপ্টেম্বরের ৩য় সপ্তাহ থেকে অক্টোবর ৩য় সপ্তাহ। বাংলাদেশের ৬টি বিভাগীয় শহরে বুটক্যাম্প অনুষ্ঠিত হবে। (ঢাকা, খুলনা, বরিশাল, সিলেট, রাজশাহী, চট্টগ্রাম).
বুটক্যাম্পে বিশেষজ্ঞ প্রশিক্ষক ও ফ্যাসিলিটেটররা শিক্ষা দেবেন। ফ্যাসিলিটেটররা তরুণ অংশগ্রহণকারীদের এমন একটি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে নিয়ে যাবে যার মাধ্যমে তারা তাদের শক্তি তৈরি করতে পারে, সম্পর্ক গড়ে তুলতে পারে, সাফল্য এবং ব্যর্থতা পাড়ি দিতে পারে এবং প্রযুক্তিগত দক্ষতা বিকাশ করতে পারে।
যাদের প্রকল্প বুটক্যাম্পে নির্বাচিত হবে, জেনারেশন আনলিমিটেড তাদের সীড ফান্ড ($১০০০) প্রদান করবে। এই সীড ফান্ড টি প্রায় ৬ সপ্তাহ ধরে তাদের নিজস্ব প্রকল্প বাস্তবায়নে ব্যবহার করা হবে। এ বাস্তবায়নের সময়কালে, জেনারেশন আনলিমিটেডের মনোনীত বিশেষজ্ঞরা তরুণদের যেকোনো ধরণের সাধারণ এবং প্রযুক্তিগত সাহায্যের ক্ষেত্রে ক্রমাগত সহায়তা করবে।
না। যুব চ্যালেঞ্জ বুট ক্যাম্পের নিবন্ধনের জন্য কোন ফি লাগবে না।
হ্যাঁ. তরুণরা যারা অংশ্যগ্রহন করতে ইচ্ছুক, তাদের একটি দল গঠন করে আবেদন জমা দিতে উৎসাহিত করা হয়। প্রতিটি দলে কমপক্ষে ৩ – ৫ জন সদস্য থাকতে পারবে।
আবেদনগুলি একটি প্যানেল দ্বারা পর্যালোচনা করা হবে। আমরা প্রথমে সব তথ্য সেখানে আছে কিনা তা পরীক্ষা করব এবং না থাকলে দলের সাথে ফলোআপ করব। তারপরে আমরা বিভিন্ন ক্ষেত্র বিবেচনা করব:
১. অবেদনটি কি জলবায়ু পরিবর্তন সম্পর্কিত এমন কোনো সমস্যার সমাধান নির্দেষ করছে যা তোমাকে এবং তোমার কমিউনিটিকে প্রভাবিত করছে?
২. এই সমস্যাটি সমাধানের জন্য বিদ্যমান সমাধানের ঘাটতি আছে কি? টিম কি বুটক্যাম্প এবং পরবর্তী বাস্তবায়নে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হতে পারে?
অংশগ্রহণকারীরা দলে কাজ করবে। প্রতিটি দলে ৩ থেকে ৫ জন তরুণ অংশগ্রহণকারী থাকবে।
বুটক্যাম্পে নির্বাচিত হয়ে যাওয়ার পর, ৩ দিনের একটি অনাবাসিক ক্ষমতা বৃদ্ধির প্রশিক্ষণ দেয়া হবে। বাস্তবায়নের শেষে দলগুলো তাদের প্রকল্পগুলো জেন ইউ বাংলাদেশ স্টিয়ারিং কমিটির সামনে উপস্থাপন করবে। এর মধ্যে থেকে কিছু সংখ্যক দল গ্লোবাল “জেন ইউ প্রোগ্র্যাম” এর জন্য নির্বাচিত হবে।
হ্যাঁ, “ইয়ুথ চ্যালেঞ্জ” এ অংশগ্রহণকারী সকলে সমাপনী /অংশগ্রহণের সনদপত্র পাবেন।
বুট ক্যাম্পের প্রাথমিক থিম হল জলবায়ু পরিবর্তন এবং এর সাথে সম্পর্কিত বিভিন্ন বিষয় ও সমস্যা।
হ্যাঁ, বুট ক্যাম্পে যোগ দিতে পারবে তবে তাদের অক্ষমতার বিশদ বিবরণ দিতে হবে যাতে সহায়তার ব্যবস্থা করা যায়।
বুটক্যাম্পের সময় যুবকরা যে কাজ করবে, তারা যে সমাধান নিয়ে আসবে এবং তাদের প্রকল্পের উপস্থাপনার উপর ভিত্তি করে দলগুলোকে সীড ফান্ড পাওয়ার জন্য নির্বাচিত করা হবে, যা কিছু নির্বাচনের মানদণ্ড দ্বারা মূল্যায়ন করা হবে।
জেনারেশন আনলিমিটেড বাংলাদেশের স্টিয়ারিং কমিটির সভায় বাস্তবায়িত প্রকল্পের প্রভাব/ফলাফল উপস্থাপন করা।